X

Type keywords like Social Business, Grameen Bank etc.

More than 140 former heads of state and Nobel laureates call on candidates for German chancellor to waive intellectual property rules for COVID vaccines

More than 140 former heads of state and Nobel laureates call on candidates for German chancellor to waive intellectual property rules for COVID vaccines

Press Release

15th of September 2021

More than 140 former heads of state and Nobel laureates call on candidates for German chancellor to waive intellectual property rules for COVID vaccines

 

More than 140 former heads of state and government and Nobel laureates today called on the candidates to be the next German chancellor Annalena Baerbock, Olaf Scholz, and Armin Laschet to declare themselves in favour of waiving intellectual property rules for COVID 19 vaccines and transferring vaccine technologies, and “to make these the policies of any future coalition government”.

 

The signatories underlined that ending German opposition to waiving patents is vital to overcoming vaccine monopolies, transferring vaccine technology and scaling up vaccine manufacturing around the world to prevent millions more deaths from Covid-19.

 

Former world leaders including former President of France François Hollande, former Prime Minister of the United Kingdom Gordon Brown, former President of Colombia Juan Manuel Santos, former President of Malawi Joyce Banda and Nobel prize winners including Professor Joseph Stiglitz, Professor Francoise Barre-Sinoussi, Professor Muhammad Yunus and Elfriede Jelinek express that they are “deeply concerned with Germany’s continued opposition to a temporary waiver of the World Trade Organization’s (WTO) intellectual property rules”, at a time in which “the artificial restriction on manufacturing and supply is leading to thousands of unnecessary deaths from COVID-19 each day”. Less than two per cent of adults are fully vaccinated in low-income countries compared to almost 50 per cent in high income countries.

 

Signatories urge the three candidates to support a wide and comprehensive waiver of the TRIPS intellectual property agreement on all COVID-19-related technologies at the WTO, and join over 100 countries including the United States and France in doing so. Despite that, Germany continues to oppose a waiver of the trade-related aspects of intellectual property (TRIPS) agreement for Covid-19 vaccines and treatments at the WTO. First proposed by India and South Africa in October 2020, a waiver is now supported by more than 100 nations, with France and the United States announcing their support earlier this year.

 

The letter emphasizes that “Having helped create the most successful vaccine technology against COVID-19, by overcoming pharmaceutical monopolies and insisting that the technology be shared, Germany has the ability to help end this pandemic”. In addition to supporting the waiver they call on the next Chancellor to ensure that German pharmaceutical companies openly and rapidly share life-saving mRNA vaccine technology with qualified producers around the world.

 

Helen Clark, former Prime Minister of New Zealand, said: “Germany’s support for a TRIPS waiver in the exceptional circumstances presented by COVID-19 would send a clear signal that all peoples should be able to benefit speedily from available vaccines and therapeutics. Widespread vaccination now and further scaling up of vaccine production will play a significant role in curbing the pandemic.”

 

Joseph Stiglitz, Nobel Economics Prize Laureate, said: “The new Chancellor of Germany will hold extraordinary power to turn the tide on this horrific pandemic and can be the world leader remembered for helping save millions of lives. Intellectual property rules are today locking out people across the world from the benefits of life-saving science - it is time for Germany to ensure the transfer of vaccine technologies and join the rest of the world in backing a temporary waiver at the World Trade Organization”.

 

As the Heads of State and Government and Nobel Laureates write to the candidates for Chancellors, activists around the world have organized protests to demand the German government to stop blocking efforts to vaccinate the world. Protests will take place from the city of Nairobi to the Sydney Opera House in Australia, from the Union Buildings in Pretoria to Brazil's famous Cristo Rei and the famous Golden Gate Bridge in San Francisco.

 

The letter, which was coordinated by the People’s Vaccine Alliance, a coalition of more than 70 organizations including Club de Madrid, the Yunus Centre and UNAIDS, warned that extreme vaccine inequity is bound to last as long as there will be no remarkable increase in vaccine production. While high-income countries are now starting to offer their citizens booster shots, the global supply falls far short of the levels needed to provide global vaccination coverage.

 

Notes to editors

Read the full letter and list of signers.

 

The letter was coordinated by the People’s Vaccine Alliance, a coalition of more than 70 organizations including Club de Madrid, Physicians for Human Rights, Oxfam, UNAIDS, the Nizami Ganjavi International Center, Global Justice Now, the Yunus Centre and Avaaz, as well as Progressive International.

 

--------------

 

প্রেস রিলিজ

জার্মানীর চ্যান্সেলর পদপ্রার্থীদের নিকট প্রাক্তন সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান এবং নোবেল লরিয়েটদের আকুল আবেদন - ভ্যাকসিন থেকে প্যাটেন্ট প্রত্যাহার করুন

১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

১৪০ জনের অধিক প্রাক্তন সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান এবং নোবেল লরিয়েট জার্মানীর আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে চ্যান্সেলর পদপ্রার্থীদের নিকট কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের উপর আরোপিত বুদ্ধিবৃত্তিক স্বত্বাধিকার আইন সাময়িকভাবে প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন।

এই স্বাক্ষর প্রদানকারী প্রাক্তন সরকার ও রাষ্টপ্রধান এবং নোবেল লরিয়েটবৃন্দ অদ্য জার্মান চ্যান্সেলর পদে প্রতিযোগিতারত তিন প্রার্থী অ্যানালেনা বেরবক, ওলাফ শল্জ ও আরমিন ল্যাসেটের নিকট আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা যেন নিজেদেরকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের বুদ্ধিবৃত্তিক স্বত্বাধিকার রদ ও ভ্যাকসিন প্রযুক্তি উন্মুক্ত করে দেয়ার পক্ষে থাকার ঘোষণা দেন এবং  যে-কোনো ভবিষ্যৎ কোয়ালিশন সরকারের নীতি হিসেবে এই সিদ্ধান্তটি গ্রহণ করা হবে এটা এখনই জানিয়ে দেন।

এই আহ্বানে স্বাক্ষরকারীগণ জোর দিয়ে বলেন যে, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ জনিত কারণে আরো লক্ষ লক্ষ মৃত্যু থেকে মানুষকে রক্ষা করতে ভ্যাকসিন মনোপলির অবসান করে ভ্যাকসিন প্রযুক্তি হস্তান্তর এবং ভ্যাকসিন উৎপাদন বৃদ্ধি ও ত্বরান্বিত করতে হলে প্যাটেন্ট স্বত্বত্যাগে বর্তমানে জার্মানী যেভাবে প্রায় একাকী  বিরোধিতা করে যাচ্ছে তার অবসান হলে বিশ্বব্যাপী পুরো সমস্যাটির সমাধান হয়ে যাবে।

এই চিঠিতে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে রয়েছেন ফ্রান্সের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলান্ড, যুক্তরাজ্যের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউন, কলম্বিয়ার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট হুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস, মালাওয়ির প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জয়সে বান্ডা এবং নোবেল পুরস্কার বিজয়ী প্রফেসর জোসেফ স্টিগলিৎজ, প্রফেসর ফ্রাঁসোয়া বাররে সিনোসি, প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ও এলফ্রিডে জেলিনেক যাঁরা বলেন যে, যখন কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের উৎপাদন ও বিতরণে কৃত্রিম বিধিনিষেধ প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষকে নিরর্থক মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে এমন এক সময়ে “বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তি আইনের একটি সাময়িক রদ-এর বিষয়ে জার্মানীর ক্রমাগত বিরোধিতায় তাঁরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। অতি উচ্চ আয়ের দেশসমূহের প্রায় ৫০ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ যেখানে পুরোপুরি ভ্যাকসিন সুরক্ষা পেয়েছে সেখানে নিম্ন আয়ের দেশসমূহের ২ শতাংশেরও কম প্রাপ্তবয়স্করা এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন সুরক্ষার অধীনে আসতে পেরেছে।

স্বাক্ষরকারীগণ এই তিন নির্বাচনী প্রার্থীর নিকট বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় কেভিড-১৯ সংক্রান্ত সকল প্রযুক্তির ক্ষেত্রে ট্রিপস বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তি চুক্তি প্রত্যাহারের প্রতি সমর্থন দেবার জন্য তাঁরা তিন চ্যান্সেলর পদপ্রার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান এবং এই লক্ষ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্স সহ শতাধিক দেশের সাথে যোগ দিতে তাঁদের অনুরোধ করেন। উল্লেখ্য যে, জার্মানী বরাবরই এই উদ্যোগের বিরোধিতা করে এসেছে। ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা কর্তৃক অক্টোবর ২০২০-এ প্রথম উত্থাপিত এই প্রস্তাবে এ পর্যন্ত শতাধিক দেশ সমর্থন জানিয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্স এ বছরের শুরুতে তাদের সমর্থন ঘোষণা করে। জার্মানী রাজী হলেই প্রস্তাবটি অনুমোদিত হয়ে যাবার পথে আর কোনো বাধা থাকবে না।

এই চিঠিতে বিশেষভাবে বলা হয় যে, “কোভিড-১৯ রোধ করতে সফলতম ভ্যাকসিন প্রযুক্তি পৃথিবীর সর্বত্র উৎপাদন করে গুটিকয়েক ওষুধ কোম্পানীর একচেটিয়া কতৃত্বের অবসান ঘটানোর মাধ্যমে এই প্রযুক্তি সকল জাতির কাছে উন্মুক্ত করে দিয়ে এই মহামারীর অবসান ঘটাতে সাহায্য করার ক্ষমতা এখন একমাত্র জার্মানীর হাতে।” এসব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে সহায়তার পাশাপাশি এই আহ্বানে জার্মানীর পরবর্তী চ্যান্সেলরের নিকট জার্মানীর ওষুধ কোম্পানীগুলি কর্তৃক বিশ্বব্যাপী ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের নিকট জীবনরক্ষাকারী এম-আরএনএ ভ্যাকসিন প্রযুক্তি সামগ্রিকভাবে দ্রæত হস্তান্তর করার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্যও স্বাক্ষরকারীগণ আহ্বান জানান।

এ বিষয়ে নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী হেলেন ক্লার্ক বলেন, “কোভিড-১৯ এর কারণে এই বিশেষ প্রেক্ষাপটে “ট্রিপস” রদ-এ জার্মানীর সমর্থন একটি পরিস্কার বার্তা দেবে যে, প্রাপ্য ভ্যাকসিন ও চিকিৎসায় সকল মানুষের দ্রæত সুবিধা পাবার অধিকার রয়েছে। এই মুহূর্তে ব্যাপকহারে ভ্যাকসিন প্রদান এবং ভ্যাকসিন উৎপাদন ত্বরান্বিত করতে পারলে তা এই মহামারীর প্রকোপ বিপুলভাবে কমিয়ে আনতে সাহায্য করবে।”

অর্থনীতিতে নোবেল জয়ী প্রফেসর জোসেফ স্টিগলিৎজ বলেন, “এই ভয়াবহ মহামারী মোকাবেলা করতে জার্মানীর নতুন চ্যান্সেলরের অসাধারণ ক্ষমতা থাকবে এবং তিনি লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবন রক্ষায় সহায়তার জন্য স্মরণীয় হয়ে বিশ্ব নেতায় পরিণত হতে পারেন। বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তি আইনগুলি আজ সারা পৃথিবীতে জীবন-রক্ষাকারী বিজ্ঞানের সুবিধা থেকে মানুষকে বঞ্চিত করে রেখেছে Ñ জার্মানীর জন্য এখনই সময় ভ্যাকসিন প্রযুক্তি হস্তান্তর নিশ্চিত করার এবং বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় এই সাময়িক রদ-কে সমর্থন দিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে হাত মেলানোর।”

বিশ্বের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান এবং নোবেল লরিয়েটগণ যখন জার্মানীর চ্যান্সেলর পদপ্রার্থীদের নিকট এই আহ্বান জানাচ্ছেন, তখন বিশ্বব্যাপী মানবাধিকার কর্মীগণ সারা পৃথিবীর মানুষের ভ্যাকসিন সুরক্ষায় জার্মান সরকারের বাধা সৃষ্টির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ করছেন এবং তাকে তার অবস্থান পরিবর্তনের জন্য দাবী জানাচ্ছেন। প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নাইরোবী থেকে অষ্ট্রেলিয়ার সিডনী অপেরা হাউসে, প্রিটোরিয়ার ইউনিয়ন ভবন থেকে ব্রাজিলের প্রখ্যাত ক্রিস্টো রেই-এ, এবং সান ফ্রানসিসকোর বিখ্যাত গোল্ডেন গেইট ব্রিজে।

জার্মানীর চ্যান্সেলর পদপ্রার্থীদের নিকট লেখা এই চিঠির উদ্যোক্তা পিপল্স ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স (যা ক্লাব দ্য মাদ্রিদ সহ বিশ্বের ৭০টি খ্যাতনামা সংগঠনের একটি কোয়ালিশন), ফিজিশিয়ানস ফর হিউম্যান রাইটস, অক্সফাম, ইউএন-এআইডিএস (টঘঅওউঝ), নিজামী গানজাভি ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার, গেøাবাল জাস্টিস নাউ, ইউনূস সেন্টার, আওয়াজ (আধধু) এবং প্রোগ্রেসিভ ইন্টারন্যাশনাল এবং চিঠিতে এই সতর্কবানী উচ্চারণ করা হয়েছে যে, ভ্যাকসিন উৎপাদন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি না পাওয়া পর্যন্ত বিদ্যমান চরম ভ্যাকসিন-অসমতা চলতেই থাকবে। যেখানে উচ্চ আয়ের দেশগুলি তাদের নাগরিকদেরকে বুস্টার শট দিতে শুরু করেছে, পৃথিবীর সকল মানুষকে ভ্যাকসিন সুরক্ষার আওতায় আনতে বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিনের যোগান এখনো প্রয়োজনের তুলনায় অত্যন্ত অপ্রতুল।

 

সম্পাদকের উদ্দেশ্যে:

পুরো চিঠি ও স্বাক্ষরকারীদের তালিকার জন্য দেখুনঃ https://www.spiegel.de/wirtschaft/soziales/impfstoffpatente-ex-praesidenten-und-nobelpreistraeger-appellieren-an-kanzlerkandidaten-a-fc72f259-0575-4223-b17e-6018b35e8cd0

 

অনুবাদক: কাজী নজরুল হক

Related

YSBC Web Lecture Series - Lecture#37: he Story of a Social Business Entrepreneur from Japan.

YSBC Web Lecture Series - Lecture#37: he Story of a Social Business Entrepreneur from Japan.
Join us for the 37th session of our YSBC Web Lecture Series on "The Story of a Social Business Entrepreneur from Japan" with Speaker Yukoh Satake; Co-CEO, Grameen Euglena, Japan. The session will be  moderated by A K M Moinuddin Chowdhury; Managing Director, Gra...

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রফেসর ইউনূসের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগসমূহের জবাব

  সম্প্রতি (জুন ২০২২) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে কিছু গ...

Yunus Speaks at Parliamentary Breakfast in the German Parliament

Yunus Speaks at Parliamentary Breakfast in the German Parliament
Press Release Caption for Photo 1 : With Prof. Dr. Rita Suessmuth (born 1937), a long time friend and supporter of Yunus's programmes, came to meet Professor Yunus to hear him speak. She is the former two term President (Speaker) of German Parliament, November 1988 &...

Mahathir Mohammad Invites Professor Yunus for a Discussion

Mahathir Mohammad Invites Professor Yunus for a Discussion
Yunus Centre Press Release (March 30, 2022) Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus and Former Prime Minister of Malaysia Dr. Mahathir Mohammad greeting each other on March 28, 2022 during Professor Yunus’ 3 day visit to Malaysia. Nobel Laureate Professor Muha...

ড. মাহাথির ও প্রফেসর ইউনূসের মধ্যে বৈঠক

ড. মাহাথির ও প্রফেসর ইউনূসের মধ্যে বৈঠক
ইউনূস সেন্টার প্রেস রিলিজ (৩০ মার্চ ২০২২)  মার্চ ২৮, ২০২২ কুয়ালালামপুরে ড. মাহাথির মোহাম্মদের কার্যা...

মালয়েশিয়ার আলবুখারী আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ডিগ্রি প্রদান করলেন প্রফেসর ইউনূস

মালয়েশিয়ার আলবুখারী আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ডিগ্রি প্রদান করলেন প্রফেসর ইউনূস
ইউনূস সেন্টার প্রেস রিলিজ (২৮ মার্চ ২০২২) ছবির ক্যাপশন: আলবুখারী আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্...

Yunus Gives out degrees in the first convocation ceremony of Albukhary International University (AIU) in Malaysia

Yunus Gives out degrees in the first convocation ceremony of Albukhary International University (AIU) in Malaysia
Yunus Centre Press Release ( 28 March 2022) Caption : Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus with the faculty and graduating students of Albukhary International University (AIU) at the inaugural convocation 2022. Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus gave out deg...

Yunus Scholarship | One Young World 2022

Yunus Scholarship | One Young World 2022
  Yunus Centre is currently accepting applications from candidates to participate in the One Young World 2022 Summit in Tokyo, Japan from 16-May, 2022.   The annual One Young World Summit brings together the most promising young talents from global and na...