Social Business on Safe Water and Three Social Business Centres launched at Design Lab; New Entrepreneurs cross 10,000

Press Release (22 November, 2016)

Investments into five New Entrepreneur (NU) projects were announced on Thursday at the 415th Social Business Design Lab. The New Entrepreneurs, children of Grameen Bank borrowers are seen in the photo with Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus.  This Lab marked crossing 10,000 new entrepreneurs financed from Grameen's Nobin Udyokta fund.

The 415th Social Business Design Lab organized by Yunus Centre took place on 22ndNovember 2016 at the Grameen Bank Auditorium with nearly 155 participants from national and international organizations attending. The Design Lab was chaired by Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus.

Five new Nobin Udyokta business plans were presented at today's Lab. All Nobin Udyokta businesses, presented at the Design Lab are the children of Grameen Bank borrowers’ families. These five plans included Putul Kutir Shilpa by Putul Rani, who has 15 years of experience in making traditional handicraft items. Rashid Cycle Store project was presented Md. Jewel Hossain who is expert in repairing bicycles and has decided to become an entrepreneur using his skill. Rina Rani Roy presented Prokriti Beauty Parlor project. Ms Rani, mother of one, is a trained beautician and determined to become a self reliant entrepreneur. Other two projects are Tanvir Garments by Nur Mohammad who is an entrepreneur with a physical disability and Shourav Tailros and Cosmetics by Mst. Shahina Begum.

 

An open social business project was presented at the design lab today. Shazeeb M Khairul Islam of Social Busienss Youth Alliance (SBYA) presented the project ‘YC Watersprint : A Social Business Ensuring Access to Safe Drinking Water for All’. The project will use a Swedish UV technology to purify river water into drinking water which is currently being field tested in Manikganj. SBYA Global and Grameen Telecom Trust will jointly implement the project.

All business plans were presented and discussed in detail. Those were then presented in groups for further review. All projects were approved for funding by their groups. The projects are joint ventures with social business funds and their progress will be monitored on www.socialbusinesspedia.com.

Since the Labs began in January 2013, over 10,181 projects have been presented in the last 414 Lab programs, of which 10,156 projects have been approved for equity funding investments ranging from taka one lakh to five lakh for Nobin Udyokta projects. This design marked the milestone of more than 10,000 new enterpreneuers funded.

Three MOUs also signed today at the end of design lab. To set up ‘Yunus Social Business Centre (YSBC)’, Yunus Centre signed agreements with Daffodil International University, Bangladesh, King’s College, Nepal and Dhaka International University, Bangladesh. Each will create a center within their university to bring social business into their curriculum and courses.

A Joint Venture Agreement was also signed between Grameen Telecom Trust and ASHIKA to produce safe drinking water in Rangamati.

Professor Yunus thanked the participants and invited them to join next Social Business Design Lab which will take place on December 19, 2016.

Photo Caption 2:  Project of New Entrepreneur Putul Rani, who is seen holding traditional handmade fish-trap along with Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus, was approved for investment at the 415th Social Business Design Lab on 22nd November 2016.

Photo Caption 3:  An MoU is signed between Yunus Centre and Kings College, Nepal for the setting up of a Yunus Social Business Centre (YSBC) during 415th Social Business Design Lab on 22nd November 2016.

Photo Caption 4:  An MoU is signed between Yunus Centre and Dhaka International University(DIU) for the setting up of a Yunus Social Business Centre (YSBC) during 415th Social Business Design Lab on 22nd November 2016.

--- End ---

 

প্রেস রিলিজ

ডিজাইন ল্যাবে নিরাপদ পানি সরবরাহের উপর সামাজিক ব্যবসা ও ৩টি সামাজিক ব্যবসা কেন্দ্র চালু -
নবীন উদ্যোক্তার সংখ্যা ১০ হাজার অতিক্রম করলো

ইউনূস সেন্টার আয়োজিত ৪১৫তম সামাজিক ব্যবসা ডিজাইন ল্যাব ২২ নভেম্বর ২০১৬ গ্রামীণ ব্যাংক অডিটোরিয়াম কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় ১৫৫ জন অংশগ্রহণকারী এই ল্যাবে যোগ দেন। ডিজাইন ল্যাবে সভাপতিত্ব করেন নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ।

আজকের ডিজাইন ল্যাবে ৫টি নতুন “নবীন উদ্যোক্তা” ব্যবসা পরিকল্পনা উপস্থাপিত হয়। উপস্থাপিত ব্যবসাগুলোর উদ্যোক্তাদের সকলেই গ্রামীণ ব্যাংকের ঋণগ্রহীতা পরিবারের সন্তান। উপস্থাপিত ৫টি ব্যবসার মধ্যে একটি হচ্ছে পুতুল রানীর “পুতুল কুটির শিল্প”। পুতুল রানী ১৫ বছর যাবত বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী হস্তশিল্প সামগ্রী তৈরী করে আসছেন। মোঃ জুয়েল হোসেন উপস্থাপন করেন তাঁর “রশীদ সাইকেল স্টোর” প্রকল্প। রশীদ সাইকেল মেরামতে দক্ষ এবং তিনি তাঁর দক্ষতা ব্যবহার করে নিজেই উদ্যোক্তা হবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। শ্রীমতি রীনা রানী রায় উপস্থাপন করেন তাঁর “প্রকৃতি বিউটি পার্লার” প্রকল্প। এক সন্তানের জননী রীনা রানী একজন প্রশিক্ষিত বিউটিশিয়ান যিনি একজন আত্মনির্ভর উদ্যোক্তা হতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। অপর দু’টি প্রকল্পের একটি হচ্ছে  শারীরিক প্রতিবন্ধী উদ্যোক্তা নূর মোহাম্মদের “তানভীর গার্মেন্টস” এবং মোছাম্মৎ শাহিনা বেগমের “সৌরভ টেইলার্স এন্ড কসমেটিক্স”।

আজকের ডিজাইন ল্যাবে একটি উন্মুক্ত সামাজিক ব্যবসা প্রকল্প উপস্থাপন করা হয়। সোশ্যাল বিজনেস ইয়ুথ অ্যালায়েন্সের সজীব এম খাইরুল ইসলাম “ওয়াইসি ওয়াটারস্প্রিন্টঃ এ সোশ্যাল বিজনেস এনশিউরিং অ্যাকসেস টু সেফ ড্রিংকিং ওয়াটার ফর অল” নামের প্রকল্পটি উপস্থাপন করেন। এই প্রকল্পটি একটি সুইডিশ টেস্ট ইউভি প্রযুক্তি ব্যবহার করে নদীর পানিকে বিশুদ্ধ করে পানযোগ্য করবে। প্রযুক্তিটি এখন মানিকগঞ্জে ফিল্ড টেস্ট করা হচ্ছে। সোশ্যাল বিজনেস ইয়ুথ অ্যালায়েন্স গ্লোবাল ও গ্রামীণ টেলিকম ট্রাস্ট প্রকল্পটি যৌথভাবে বাস্তবায়ন করবে।

নবীন উদ্যোক্তাদের ব্যবসায়িক পরিকল্পনাগুলো বিশদ উপস্থাপনা করা হয় এবং এগুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। এরপর প্রকল্পগুলো অধিকতর পর্যালোচনার জন্য দলীয় পর্যায়ে উপস্থাপনা করা হয়। উপস্থাপিত প্রতিটি প্রকল্পই স্ব-স্ব দল কর্তৃক অর্থায়নের জন্য অনুমোদিত হয়। গ্রামীণের সামাজিক ব্যবসা তহবিলের সাথে যৌথ-মূলধনী ব্যবসা হিসেবে পরিচালিত এই সামাজিক ব্যবসা প্রকল্পগুলো www.socialbusinesspedia.com –এ মনিটর করা হবে।

জানুয়ারী ২০১৩-এ ডিজাইন ল্যাব শুরু হবার পর ৪১৪তম ল্যাব পর্যন্ত ১০,১৮১টির বেশী প্রকল্প ডিজাইন ল্যাবে উপস্থাপন করা হয়েছে যাদের মধ্যে ১০,১৫৬টি প্রকল্প মূলধনী বিনিয়োগের জন্য অনুমোদিত হয়েছে। এসকল নবীন উদ্যোক্তা প্রকল্পে অনুমোদিত ইক্যুইটি ফান্ডের পরিমাণ প্রকল্প প্রতি ১.০ থেকে ৫.০ লক্ষ টাকা। আজকের ডিজাইন ল্যাব ১০,০০০ নবীন উদ্যোক্তাকে অর্থায়নের মাইলফলক অতিক্রম করলো।

ডিজাইন ল্যাবের শেষদিকে ৩টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। ইউনূস সামাজিক ব্যবসা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, কিংস কলেজ নেপাল ও ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ-এর সাথে ইউনূস সেন্টারের ৩টি পৃথক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। এই তিনটি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রত্যেকেই স্ব-স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি করে ইউনূস সামাজিক ব্যবসা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করবে এবং তাদের কারিক্যুলাম ও কোর্সে সামাজিক ব্যবসাকে অন্তর্ভূক্ত করবে।

এছাড়াও রাঙামাটিতে নিরাপদ পানি সরবরাহ করার লক্ষ্যে গ্রামীণ টেলিকম ট্রাস্ট ও আশিকার মধ্যে একটি জয়েন্ট ভেঞ্চার চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয়।

প্রফেসর ইউনূস ডিজাইন ল্যাবে যোগদানের জন্য অংশগ্রহণকারীদের ধন্যবাদ জানান এবং  ১৯ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে অনুষ্ঠেয় পরবর্তী সামাজিক ব্যবসা ডিজাইন ল্যাবে যোগদান করতে তাঁদের আমন্ত্রণ জানান।


------

hard-extreme.com tellyseries