Leading Indian Businesses Unite to Launch Social Businesses

Press Release (21 November, 2016)

India sets a  platform for large corporations to create their own social businesses

Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus with the CEOs of Tata companies after an exclusive meeting  convened to meet him to discuss how the Tata companies including Water, Power, Steel, among others can get involved in creating social businesses through each company.

Yunus Social Business, India, Indian wing of Nobel Peace Laureate Muhammad Yunus’ global social business promotion organization, and Tata Trusts jointly launched an initiative named as "Indian Corporate Action Tank",  (ICAT), in Mumbai on November 18, 2016, an initiative to create corporate social businesses – addressing important social issues like nutrition, healthcare, sanitation, housing and other issues and driving innovation for the poor. The ICAT will be India’s first platform for large corporations to create in-house corporate social businesses that leverage their core business skills to address social problems in a financially sustainable way. The ICAT will build on the practitioner led experiences, knowledge and on-ground presence of its iconic founding organizations.

The companies that have so far publicly announced to have joined the Indian Corporate Action Tank are Tata Trust, Tata Steel, RPG Group, Danone India.  Another ten companies have signed up and waiting to complete their organizational procedures before they can announce their participation in this collective initiative.

 

Speaking on the partnership, Professor Muhammad Yunus said “Corporate Action Tank, India,  is an exciting idea, it is the beginning of an entirely  new business ecosystem. Personal-profit-centric businesses can create social businesses to solve human problems -- that is  the message of this initiative . A group of top Indian corporates are joining hands not to discuss about the necessity of getting businesses to pay attention to the social problems around them, but to roll up their sleeves for getting busy with the actual problem-solving through social business methodology. This is a historical moment for India, and also for the whole world.  I wish a big success for the Action Tank India."

Speaking at the event, Ganesh Neelam, Head of Innovation, Tata Trusts, said, “At Tata Trusts, we believe that focused, innovative and replicable interventions in close coordination with the community are the future of sustainable development. With an increased corporate focus on creating impact on ground, the Indian Corporate Action Tank will act as a spring-board to create social businesses that will enhance the quality of life of the underserved communities.”

Tata Trusts aims to drive the corporates participating in the Indian Corporate Action Tank towards working on social challenges that will ensure significant impact on the society. Tata Trusts will also provide guidance to these social businesses in terms of understanding the challenges on ground and provide its strong community connect towards piloting them and ultimately scaling up the businesses in close coordination with community institutions.

The Corporate Action Tank  will take a cohort of diverse corporates through structured ideation to develop individual and  joint social business ideas and then help undertake actual  pilot projects on the ground. The platform has been co-designed by the founding partners assisted by Boston Consulting Group.

Formal launching of the Corporate Action Tank took place in the presence of Finance Minister of Maharashtra, Mr. Sudhir Mungatiwar  and  State Minister for Planning of Maharashtra, Mr. Deepak Vasant Kesarkar, CEOs and senior officials of leading corporations of India during the India Social Business Forum. Professor Yunus, who was the chief guest at the Forum,  gave the key note speech. The Forum was attended by participants from many states of India. Other companies present for the launch were  Sodexo India, Mahindra, UTV Group, RPG Enterprises, Apollo, Wockhardt, and representatives from several Tata companies.

The ministers along with Professor Yunus also launched a new Social Business Fund in Bangaluru funded  by Vinatha Reddy from her family foundation. Ms Reddy is also the  founder of the leading Indian  microfinance bank Grameen Koota. The Fund is named as "Yunus Social Business Fund Bengaluru" with an initial capital of US$ 2.5 million. This Fund will  invest into social businesses  in Karnataka and the neighboring states. First Yunus Social Business Fund was established in 2009 in Mumbai by Mr Shelgikar with his personal fund of one million dollars. This has created a number of successful social businesses in Mumbai.

Professor Yunus was a key note speaker at the annual Philanthropy Forum organized by Azim Premji, Chairperson WIPRO and Mr Jamshed Godrej, together with Microsoft founder Bill Gates.

Professor Yunus appeared at "Tata Lit Live",  leading literature festival in Mumbai at the National Centre for Performing Arts, on a special panel with P. Chidambaram, former Union Minister of Finance on the topic of "Banking for the Bottom Billion".

Professor Yunus attended a breakfast meeting with CEOs of top Indian companies and spoke on the danger of wealth concentration, and need for directing the young people to become entrepreneurs rather than job-hunters.

On second day, November 19, Professor Yunus addressed the CEOs of ten Tata companies in an exclusive meeting organised by Tata Group. He briefed the CEOs on the necessity of creating social businesses by all conventional businesses to save the economy and the society from ever-increasing problems of low income, healthcare, old age, unemployment, and global warming. The lecture was followed by open discussion among the participants.

About Tata Trusts:
Tata Trusts is amongst India's oldest, non-sectarian philanthropic organizations that work in several areas of community development. Since its inception, Tata Trusts has played a pioneering role in transforming traditional ideas of philanthropy to make impactful sustainable change in the lives of the communities served. Through direct implementation, co-partnership strategies and grant making, the Trusts support and drive innovation in the areas of education; healthcare and nutrition; rural livelihoods; natural resources management; enhancing civil society and governance and media, arts, crafts and culture. Tata Trusts continues to be guided by the principles of its Founder, Jamsetji Tata, and through his vision of proactive philanthropy, the Trusts catalyses societal development while ensuring that initiatives and interventions have a contemporary relevance to the nation. For more information, please visit: http://www.tatatrusts.org/

About YSB India
Founded in 2011, Yunus Social Business India is part of a Yunus Social Business Global, founded in Germany, in 2011 A network of non profit venture funds and corporate action tanks co-founded by Nobel Peace Laureate Muhammad Yunus. YSB Global operates in 7 regions- Colombia, Brazil, Haiti, he Balkans, Tunisia, Uganda and India where it helps support social business creators through financial and non financial support. As of 2016, YSB has expanded to developing platform  called corporate action tanks to support the corporates.

Photo  Caption 2: Nobel laureate Professor Muhammad Yunus with Sudhir Mungantiwar Finance Minister of  Maharashtra and  State Minister of Planning  for the State of Maharashtra Deepak Vasant Kesarkar  at the Indian Social Business Forum, held in Mumbai on November 18 at Taj Hotel.

Photo Caption 3: Nobel Laureate Prof Muhammad Yunus with  Sudhir Muganiwatar,  Finance Minister for Maharashtra, launch the Indian Corporate Action Tank, a platform  to engage top Indian companies to create indvidual and joint-venture social businesses to  tackle social problems.

----- End ---

 

প্রেস রিলিজ

ভারতের নেতৃস্থানীয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো সামাজিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠায় একযোগে কাজ করার ঘোষণা।

সামাজিক ব্যবসা গড়ে তুলতে ভারতের বৃহৎ কর্পোরেশনগুলোর প্লাটফর্ম প্রতিষ্ঠা

নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসের সামাজিক ব্যবসা তত্ত্ব বিশ্বব্যাপী প্রসারিত করার কাজে নিয়োজিত বিশ্ব ইউনূস সামাজিক ব্যবসার ভারতীয় সংগঠন “ইউনূস সামাজিক ব্যবসা ভারত” ও ভারতের বিখ্যাত “টাটা ট্রাস্ট্স”-এর যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত “ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক” ১৮ নভেম্বর ২০১৬ মুম্বাইয়ে উদ্বোধন করা হয়েছে। পুষ্টি, স্বাস্থ্যসেবা, স্যানিটেশন ও গৃহায়নের মতো মৌলিক সামাজিক চাহিদাগুলো পূরণ এবং দরিদ্রদের সেবায় সৃজনশীলতাকে কাজে লাগাতে ভারতীয় কর্পোরেশনগুলো নিজেদের মতো করে এই উদ্যোগ নিলো। বৃহৎ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো কর্তৃক তাদের মৌলিক ব্যবসায়িক দক্ষতা ব্যবহার করে অভ্যন্তরীণ কর্পোরেট সামাজিক ব্যবসার মাধ্যমে আর্থিকভাবে টেকসই উপায়ে সমাজের বড় বড় সমস্যাগুলো মোকাবেলায় ভারতের প্রথম প্লাটফর্ম হিসেবে এই ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হলো। নব প্রতিষ্ঠিত এই কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক বিশ্বখ্যাত এই প্রতিষ্ঠানগুলোর অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান, দক্ষতা ও ভৌগোলিক উপস্থিতিকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাবে। যে সকল কোম্পানী ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংকে যোগদানের ঘোষণা দিয়েছে তারা হচ্ছেঃ টাটা ট্রাস্ট, টাটা স্টীল, আরপিজি গ্রুপ, ড্যানোন ইন্ডিয়া এবং ভিওলিয়া ইন্ডিয়া। আরো দশটি কোম্পানী ইতোমধ্যে এতে যোগদান করার অপেক্ষায় আছে এবং এই যৌথ উদ্যোগে যোগদানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবার প্রয়োজনীয় প্রাতিষ্ঠানিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলেই তারা আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবে।

এই পার্টনারশীপ সম্পর্কে বলতে গিয়ে প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস বলেন, “ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক একটি অত্যন্ত আকর্ষণীয় আইডিয়া এবং এর ফলে ব্যবসা জগতে একটি সম্পূর্ণ নতুন ইকো-সিস্টেমের জন্ম হবে। ব্যক্তিগত মুনাফা-কেন্দ্রিক ব্যবসা মানুষের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্যে সমান্তরালভাবে সামাজিক ব্যবসা সৃষ্টি করতে পারে - এই উদ্যোগ সেই বার্তাটিই দিচ্ছে। শীর্ষস্থানীয় ভারতীয় কর্পোরেশনগুলি ব্যবসায়ের মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক সমস্যাগুলোর সমাধানের ব্যাপারে শুধুমাত্র আলোচনা করার উদ্দেশ্যেই একত্রিত হয়নি, বরং সামাজিক ব্যবসা পদ্ধতির মাধ্যমে সমস্যার প্রকৃত সমাধানের জন্য সক্রিয় হতে যাচ্ছে এটাই নতুন সংবাদ। এটি শুধুমাত্র ভারতের জন্যই নয়, বরং গোটা পৃথিবীর জন্য একটি ঐতিহাসিক মূহুর্ত। আমি ভারতীয় অ্যাকশন ট্যাংকের সর্বোত সাফল্য কামনা করি।”

টাটা ট্রাস্ট্স এর হেড অব ইনোভেশন গনেশ নীলম বলেন, “টাটা ট্রাস্ট্স-এ আমরা বিশ্বাস করি যে, কমিউনিটিকে সঙ্গে নিয়ে সুনির্দিষ্ট, উদ্ভাবনশীল ও প্রতিরূপ-নির্মাণযোগ্য কর্মকান্ডের মধ্যেই রয়েছে ভবিষ্যতের টেকসই উন্নয়ন। সমাজের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে কর্পোরেটগুলোর বর্ধ্বিত মনোযোগের মধ্য দিয়ে ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক সুবিধাবঞ্চিত কমিউনিটিগুলোর জীবনমান উন্নয়নে একটি কার্যকর হাতিয়ার হিসেবে বিভিন্ন সামাজিক ব্যবসা তৈরীর কাজ করে যাবে।”

টাটা ট্রাস্ট্স এর লক্ষ্য হচ্ছে বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা মোকাবেলার মাধ্যমে সমাজে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংকে অংশগ্রহণকারী কর্পোরেশনগুলোকে নেতৃত্ব দেয়া। টাটা ট্রাস্ট্স সমাজের প্রকৃত চ্যালেঞ্জগুলো অনুধাবন করতে এই সামাজিক ব্যাবসাগুলোকে সহায়তা করবে এবং কমিউনিটির সাথে টাটার শক্তিশালী যোগাযোগকে কমিউনিটির বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে ঘনিষ্ট সমন্বয়ের মধ্য দিয়ে নবগঠিত সামাজিক ব্যবসাগুলোর পাইলটিং ও ক্রমপ্রসারের কাজে সহায়তা করবে।

মহারাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী জনাব সুধির মানগান্তিওয়ার, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী জনাব দীপক ভাসান্ত কেশরকার এবং ভারতের নেতৃস্থানীয় কর্পোরেশনগুলোর প্রধান নির্বাহী ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ভারতীয় সামাজিক ব্যবসা ফোরাম চলাকালে ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংকের আনুষ্ঠানিক প্রতিষ্ঠা ঘোষণা করা হয়। ফোরামের প্রধান অতিথি প্রফেসর ইউনূস অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য প্রদান করেন। ভারতের বিভিন্ন রাজ্য থেকে প্রায় ২০০ অংশগ্রহণকারী ফোরামে যোগ দেন। অন্যান্য যে সকল কোম্পানীর প্রতিনিধিরা এতে যোগ দেয় তাদের মধ্যে ছিল সডেক্সো ইন্ডিয়া, মাহিন্দ্র, ইউটিভি গ্রুপ, আরপিজি এন্টারপ্রাইজেস, অ্যাপোলো, ওকহাড্র্ট এবং টাটার কয়েকটি কোম্পানীর প্রতিনিধিগণ।

মন্ত্রীদ্বয় ও প্রফেসর ইউনূস বিনীতা রেড্ডির পারিবারিক ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে ব্যাংগালুরুতে একটি “সামাজিক ব্যবসা ফান্ডের” প্রতিষ্ঠা ঘোষণা করেন। মিস রেড্ডি ভারতের নেতৃস্থানীয় ক্ষদ্রঋণ ব্যাংক “গ্রামীণ কুটা”রও প্রতিষ্ঠাতা। “ইউনূস সামাজিক ব্যবসা ফান্ড ব্যাংগালুরু” নামে নবপ্রতিষ্ঠিত এই ফান্ডের প্রাথমিক মূলধন ২.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এই তহবিলটি কর্ণাটক ও আশেপাশের রাজ্যগুলোতে বিভিন্ন সামাজিক ব্যবসায়ে বিনিয়োগ করবে। উল্লেখ্য যে, প্রথম সামাজিক ব্যবসা তহবিলটি ২০০৯ সালে জনাব শেলগিকার কর্তৃক মুম্বাইয়ে তাঁর ব্যক্তিগত তহবিলের এক লক্ষ মার্কিন ডলার দিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়। এই তহবিলটি মুম্বাইয়ে অনেকগুলো সফল সামাজিক ব্যবসার জন্ম দিয়েছে।

প্রফেসর ইউনূস বার্ষিক ফিলানথ্রপি ফোরামের প্রধান বক্তা হিসেবেও বক্তৃতা করেন। এই ফোরামের আয়োজক উইপ্রোর সভাপতি জনাব আজিম প্রেমজি, জনাব জামশেদ গোদরেজ ও বিশ্বখ্যাত ব্যক্তিত্ব জনাব বিল গেট্স।

প্রফেসর ইউনূস মুম্বাইয়ের ন্যাশনাল সেন্টার ফর পারমরমিং আর্টসে অনুষ্ঠিত ভারতের নেতৃস্থানীয় সাহিত্য উৎসব “টাটা লিট লাইভ”-এ যোগদান করেন। “ব্যাংকিং ফর দি বটম বিলিয়ন” শীর্ষক একটি বিশেষ প্যানেলে ভারতের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমের সাথে তিনি মুখোমুখি আলোচনায় অংশ নেন।

প্রফেসর ইউনূস ভারতের শীর্ষস্থানীয় কোম্পানীগেুলোর প্রধান নির্বাহীদের সাথে একটি একটি প্রাতঃরাশ সভায়ও যোগ দেন এবং সম্পদ কেন্দ্রীকরণের বিপদ ও তরুণদের ক্ষেত্রে চাকরী খোঁজার চেয়ে বরং উদ্যোক্তা হবার পথে তাদের পরিচালিত করার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে কথা বলেন।

দ্বিতীয় দিনে অর্থাৎ ১৯ নভেম্বর প্রফেসর ইউনূস টাটা গ্রুপের আয়োজনে টাটার ১০টি কোম্পানীর প্রধান নির্বাহীদের নিয়ে একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন। তিনি নি¤œ আয়, স্বাস্থ্যসেবার অভাব, বার্ধক্য, বেকারত্ব এবং বৈশ্বিক উষ্ণায়নের মতো ক্রমবর্ধমান সমস্যাগুলো থেকে অর্থনীতি ও সমাজকে রক্ষা করতে প্রথাগত সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের দ্বারা সামাজিক ব্যবসা সৃষ্টির প্রয়োজনীয়তার উপর বক্তব্য রাখেন। তাঁর বক্তব্যের পর অংশগ্রহণকারীরা উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন।

টাটা ট্রাস্ট্স
টাটা ট্রাস্ট্স ভারতের সবচেয়ে প্রাচীন, অসাম্প্রদায়িক ও জনহিতৈষী প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি যা সমাজ উন্নয়নের বিভিন্ন খাতে কাজ করে থাকে। জন্মলগ্ন থেকে টাটা ট্রাস্ট্স যে-সকল কমিউনিটিতে কাজ করে আসছে সেখানকার মানুষদের জীবনে টেকসই ও ইতিবাচক পরিবর্তন আনার উদ্দেশ্যে তা জনসেবার প্রচলিত ধারণায় পরিবর্তন আনতে নেতৃস্থানীয় ভূমিকা পালন করে আসছে। সরাসরি কর্মসূচি বাস্তবায়ন, সহ-পার্টনারশীপ কর্মকৌশল ও অনুদানের মাধ্যমে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পুষ্টি, পল্লী জীবন-জীবিকা, প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবস্থাপনা, শিল্পকলা, কারুশিল্প, সংস্কৃতি এবং সিভিল সোসাইটি, সরকার ও মিডিয়ার সক্ষমতা বৃদ্ধিতে টাটা ট্রাস্ট্স সহায়তা দিয়ে আসছে এবং এসকল ক্ষেত্রে উদ্ভাবনশীলতাকে উৎসাহিত করছে। টাটা ট্রাস্ট্স তার প্রতিষ্ঠাতা জামশেদ টাটার নীতি-আদর্শ ও তাঁর পূর্বতৎপর জনসেবার (চৎড়ধপঃরাব চযরষধহঃযৎড়ঢ়ু) নীতি অনুসরণ করে দেশের উন্নয়ন চাহিদার সাথে সঙ্গতিপূর্ণ বিভিন্ন উদোগ ও কর্মকান্ডের মাধ্যমে সমাজের উন্নতিতে ভূমিকা রেখে আসছে। এ বিষয়ে আরো তথ্যের জন্য টাটার ওয়েব সাইট http://www.tatatrusts.org/ দেখুন।

ইউনূস সামাজিক ব্যবসা ভারত
২০১১ সালে প্রতিষ্ঠিত ইউনূস সামাজিক ব্যবসা ভারত জার্মানীতে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ব ইউনূস সামাজিক ব্যবসার একটি অংশ। বিশ্ব ইউনূস সামাজিক ব্যবসা নোবেল লরিয়ট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত একটি অলাভজনক ভেঞ্চার ফান্ড যা পৃথিবীর ৭টি এলাকায় - কলম্বিয়া, ব্রাজিল, হাইতি, বলকান রাষ্ট্রসমূহ, তিউনিসিয়া, উগান্ডা ও ভারতে কাজ করছে।

ছবির ক্যপশন-১: টাটার বিভিন্ন কোম্পানীর প্রধান নির্বাহীদের সাথে একটি বিশেষ বৈঠক শেষে নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস। প্রফেসর ইউনূসের সাথে এই বিশেষ সভায় পানি, শক্তি, স্টীল ও অন্যান্য খাতে কর্মরত টাটার কোম্পানীগুলো কীভাবে সামাজিক ব্যবসায়ে জড়িত হতে পারে তা আলোচনার জন্য এই সভার আয়োজন করা হয়।

ছবির ক্যপশন-২: ১৮ নভেম্বর মুম্বাইয়ের তাজ হোটেলে অনুষ্ঠিত ভারতীয় সামাজিক ব্যবসা ফোরামে মহারাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী জনাব সুধির মানগান্তিওয়ার ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী জনাব দীপক ভাসান্ত কেশরকারের সাথে নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস।

ছবির ক্যপশন-৩: নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ও মহারাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী জনাব সুধির মানগান্তিওয়ার ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক উদ্বোধন করেন। সামাজিক সমস্যাগুলো মোকাবেলায় নেতৃস্থানীয় ভারতীয় কোম্পানীগুলো কর্তৃক একক ও যৌথভাবে সামাজিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যে এই অ্যাকশন ট্যাংক একটি প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে।

----

hard-extreme.com tellyseries