Ipoh declared first Social Business City in Malaysia

Press Release

Dato' Zamri Bin Man, Mayor of Ipoh, Perak Malaysia presenting the Social Business City pledge memento to Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus at the Pangkor International Development Dialogue 2016 opening day on 5 September, 2016 witnessed by key stakeholders. Photo: Yunus Centre

A formal joint-declaration was made to make Ipoh as the first Social Business City of Malaysia by the Chief Minister of Perak, Mayor of Perak, CEO of MyHarapan, a youth organization of Malaysia, and Yunus Centre. Ipoh is the capital of Northern Malaysian state of Perak. The declaration came on opening day of the three day long Pangkor International Development Dialogue 2016 being held in Perak, Malaysia from 5-7 September 2016. Ipoh is following the example of social business cities created in other countries.

Earlier on, Sunday 4 September, 2016  Professor Yunus gave recommendations and guidelines to the Perak Social Business City Committee on how Ipoh can become an effective social business city. This committee was created for the preparation and implementation of the project on the eve of the dialogue.

Professor Yunus also delivered the keynote speech at this year’s Pangkor Dialogue which is one of the largest knowledge exchange dialogue in Southeast Asia focusing on Sustainable Development. Over a thousand delegates, including ministerial level delegates from India, Philippines, Sri Lanka, Thailand, Singapore, Bahrain, and Guinea are attending the conference.

During his keynote speech, Professor Yunus revisited his early days of building Grameen Bank and how Malaysia became the first country to adopt the Grameen Bank methodology. Professor Yunus also shared the evolution of Grameen initiatives and how it is operating social business in different sectors like healthcare, education, technology to address social problems.

During his speech, Professor Yunus brought attention to the fact of massive wealth concentration in the hands of a few people and the dangerous consequences of that, and proposed that social business could be an important tool to tackle those problems in both developing and developed countries. He also stressed on the importance of reforming the education system to realize our dream of a poverty free, unemployment free and inequality free world.

On September 4, the day before the forum, Professor Yunus was chief guest at day long social business forum where social business practitioners, academics and enthusiasts gathered together from all across Malaysia. During the day-long forum, a new Yunus Social Business Centre was announced at the University Technology Petronas, founded by government owned oil and gas company Petronas. Professor Dr Ahmad Fadzil bin Mohamad Hani, Deputy Vice Chancellor, led the MOU signing session from the side of the university.  The new Centre has been established to foster social business innovation connecting new technologies at the university.

Professor Yunus also had a bilateral meeting with the Chief Minister of Perak, Dato Seri DiRaja Dr Zambry Bin Abdul Kadir, host of the Pangkor Dialogue, on how to take forward social business and the social business city initiative in Ipoh. He and a 50 member delegation had visited Bangladesh earlier this year to explore how they can bring social business into Perak State's development program.



Photo Caption -2 : Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus is articulating the vision of an ideal social busienss city during the International Social Business Forum in Ipoh, Perak, Malaysia on 4 September, 2016. Ipoh is to be announced as the first social business city in Malaysia during the Pangkor Dialogue 2016. Photo: Yunus Centre


Photo Caption - 3 : Professor Muhammad Yunus formally launching the new Yunus Social Business Centre at  the University Technology Petronas, Malaysia on 4 September, 2016. Photo: Yunus Centre

---- End ----

 

প্রেস রিলিজ

ইপহ্-কে মালয়েশিয়ার প্রথম সামাজিক ব্যবসা নগরী ঘোষণা

মালয়েশিয়ান নগরী ইপহ্-কে মালয়েশিয়ার প্রথম “সামাজিক ব্যবসা নগরী”-তে পরিণত করতে পেরাকের মূখ্যমন্ত্রী, পেরাকের মেয়র, মালয়েশিয়ার যুব সংগঠন মাই-হারাপান-এর প্রধান নির্বাহী এবং ইউনূস সেন্টার একটি আনুষ্ঠানিক যৌথ-ঘোষণা প্রদান করেছে। উল্লেখ্য যে, ইপহ্ উত্তর মালয়েশিয়ার রাজ্য পেরাকের রাজধানী। ৫-৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ পেরাকে অনুষ্ঠিত তিন দিন ব্যাপী “প্যাংকর আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংলাপ ২০১৬” -এর উদ্বোধনী দিনে এই ঘোষণা দেয়া হলো। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে সৃষ্ট সামাজিক ব্যবসা নগরীর অনুসরণে ইপহ্ “সামাজিক ব্যবসা নগরী” হিসেবে ঘোষিত হলো। এর আগের আগের দিন ৪ সেপ্টেম্বর রবিবার প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ইপহ্ কীভাবে একটি কার্যকর সামাজিক ব্যবসা নগরীতে পরিণত হতে পারে এ বিষয়ে পেরাক সামাজিক ব্যবসা নগরী কমিটিকে প্রয়োজনীয় সুপারিশ ও গাইডলাইন প্রদান করেন। প্যাংকর সংলাপ শুরুর অব্যবহিত পূর্বে প্রকল্পটির প্রস্তুতি ও বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে এই কমিটি গঠন করা হয়।

প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস “প্যাংকর আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংলাপ ২০১৬”-এ এ বছরের সম্মেলনের মূল বক্তা হিসেবে ভাষণ দিয়েছেন। প্যাংকর আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংলাপ টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তম সংলাপ এবং এ-বিষয়ক জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের উদ্দেশ্যে এই এলাকার অন্যতম  বৃহত্তম আয়োজন। ভারত, ফিলিপাইন, শ্রীলংকা, থাইল্যান্ড, সিংগাপুর, বাহরাইন এবং গিনি থেকে মন্ত্রী পর্যায়ের প্রতিনিধিসহ এক হাজারের বেশী প্রতিনিধি এই সম্মেলনে যোগ দেন।

তাঁর সম্মেলন বক্তব্যে প্রফেসর ইউনূস বাংলাদেশে গ্রামীণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠার দিনগুলোর কথা স্মরণ করেন এবং মালয়েশিয়া কীভাবে সর্বপ্রথম বাংলাদেশে জন্ম নেয়া ক্ষুদ্রঋণের মডেল গ্রহণ করে তার বিবরণ দেন। তিনি গ্রামীণের কর্মকান্ডের বিবর্তনের ইতিহাস তুলে ধরেন এবং কীভাবে সামাজিক সমস্যাগুলোর সমাধানে স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও প্রযুক্তি খাতে গ্রামীণের বিভিন্ন সামাজিক ব্যবসা কাজ করে যাচ্ছে তা তুলে ধরেন। তাঁর বক্তৃতায় প্রফেসর ইউনূস অল্প কিছু লোকের হাতে পৃথিবীর সম্পদের বিপুল কেন্দ্রীকরণ ও তার ভয়াবহ পরিণতি সম্পর্কে শ্রোতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন এবং কীভাবে সামাজিক ব্যবসা উন্নত ও উন্নয়নশীল সকল দেশে এই সমস্যা মোকাবেলা করতে পারে তা তুলে ধরেন। দারিদ্র, বেকারত্ব ও অসমতা মুক্ত একটি বিশ্ব গড়ে তোলার স্বপ্ন বাস্তবায়নে শিক্ষা ব্যবস্থার সংস্কারের উপরও তিনি বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেন দেন।

ফোরামের আগের দিন অর্থাৎ ৪ সেপ্টেম্বর প্রফেসর ইউনূস একটি দিন-ব্যাপী সামাজিক ব্যবসা ফোরামে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন। মালয়েশিয়ার বিভিন্ন এলাকা থেকে সামাজিক ব্যবসা চর্চাকারী ব্যক্তি, শিক্ষাবিদ ও এ-বিষয়ে আগ্রহীরা এই ফোরামে অংশগ্রহণ করেন। দিন-ব্যাপী এই ফোরামে সরকারী মালিকানাধীন তেল ও গ্যাস কোম্পানী পেট্রোনাস কর্তৃক মালয়েশিয়ার বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় “ইউনিভার্সিটি টেকনোলজি পেট্রোনাস”-এ একটি নতুন “ইউনূস সামাজিক ব্যবসা কেন্দ্র” প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. আহমাদ ফাদজিল বিন মোহামাদ হানি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানের নেতৃত্ব দেন। নতুন নতুন প্রযুক্তিকে বিভিন্ন উদ্ভাবনমূলক সামাজিক ব্যবসার সাথে যুক্ত করার লক্ষ্যে নবপ্রতিষ্ঠিত এই ইউনূস সামাজিক ব্যবসা কেন্দ্র কাজ করে যাবে ।

এছাড়াও প্রফেসর ইউনূস “প্যাংকর আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংলাপ ২০১৬”-এর আয়োজক পেরাক রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী দাতো সেরি দি-রাজা ড. জামব্রি বিন আবদুল কাদিরের সাথে একটি দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকে মিলিত হন। ইপহ্ নগরীতে সামাজিক ব্যবসা ও সামাজিক ব্যবসা নগরী উদ্যোগকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া ছিল এই বৈঠকের উদ্দেশ্য।  উল্লেখ্য যে, পেরাক রাজ্যের উন্নয়ন কর্মসূচিতে সামাজিক ব্যবসাকে অন্তর্ভূক্ত করার লক্ষ্যে পেরাক রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী ৫০ সদস্যর একটি প্রতিনিধিদল নিয়ে এ বছরের শুরুতে বাংলাদেশ সফর করেছিলেন।


ছবির ক্যাপশন-১: মালয়েশিয়ার পেরাক রাজ্যের রাজধানী ইপহ্ -এর মেয়র জনাব দাতো জামরি বিন মান ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ “প্যাংকর আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংলাপ ২০১৬”-এর উদ্বোধনী দিনে অন্যান্য অংশীদারদের উপস্থিতিতে নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসকে সামাজিক ব্যবসা নগরী প্রত্রিশ্রুতি স্মারক উপহার দিচ্ছেন।

ছবির ক্যাপশন-২: নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ইপহ্, পেরাক, মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক সামাজিক ব্যবসা ফোরামে একটি আদর্শ সামাজিক ব্যবসা নগরীর রূপকল্প তুলে ধরেন।  মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত “প্যাংকর আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংলাপ ২০১৬”-এ ইপহ্-কে সামাজিক ব্যবসা নগরী হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

ছবির ক্যাপশন-৩: প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ মালয়েশিয়ার “ইউনিভার্সিটি টেকনোলজি পেট্রোনাস”-এ আনুষ্ঠানিকভাবে একটি নতুন “ইউনূস সামাজিক ব্যবসা কেন্দ্র” উদ্বোধন করছেন।

hard-extreme.com tellyseries